bangladesh-15737-%E0%A6%B8%E0%A6%BE%E0%A6%A6%E0%A7%81%E0%A6%B2%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A7%87-%E0%A7%AA-%E0%A6%A8%E0%A7%87%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%A4%E0%A7%81%E0%A6%B2%E0%A7%87-%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%AF%E0%A6%BC%E0%A7%87-%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%93%E0%A6%AF%E0%A6%BC%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%85%E0%A6%AD%E0%A6%BF%E0%A6%AF%E0%A7%8B%E0%A6%97 সাদুল্যাপুরে ৪ নেতাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

সাদুল্যাপুরে ৪ নেতাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

প্রকাশ | ১১ জানুয়ারি ২০১৭, ১৬:৪২

অনলাইন ডেস্ক

সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে সাদুল্যাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও যুবদলের চার নেতাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। কোনোভাবে তাদের খোঁজ না পাওয়ায় চরম উৎকণ্ঠা ও আতঙ্কের মধ্যে আছে পরিবারের লোকজন।

তবে এ ব্যাপারে কিছুই জানে জেলার পুলিশ, র‌্যাব বা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সদস্যরা। তারা জানিয়েছেন, এমন পরিচয়ের কাউকেই তারা আটক করেননি।

নিখোঁজ ব্যক্তিরা হলেন- সাদুল্যাপুর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও ৩ দামোদরপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো.মনোয়ারুল হাসান জীম মণ্ডল, নলডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাইদুল ইসলাম প্রিন্স, দামোদরপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাদেকুল ইসলাম সাদেক (৩৫) ও নলডাঙ্গা ইউনিয়ন যুবদলের সহ-সাধারণ সম্পাদক শফিউল ইসলাম শাপলা (৩২)।

মনোয়ারুল হাসান জীম মণ্ডলের বাবা গোলাম মোস্তফা ডিপটি মণ্ডল জানান, সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে জিম মণ্ডল সাদুল্যাপুর উপজেলা শহরের কৃষি ব্যাংক মোড় থেকে মোটরসাইকেলে করে নলডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম নয়নের কাছে যাওয়ার জন্য রওনা হয়। পথে লালবাজার নামক এলাকা থেকে সাদেকুল ইসলাম সাদেককে সঙ্গে নেয়। এরপর বিভিন্নস্থানে খোঁজখবর নিয়েও তাদের কোনও সন্ধান পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে সাদুল্যাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো.শাহারিয়া খাঁন বিপ্লব জানান, আইনশৃঙ্খলা বাহীনির পরিচয় দিয়ে তাদের তুলে নিয়ে যাওয়ার ঘটনাটি বেশ উদ্বেগের বিষয়। তবে তাদের তুলে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে জেলা পুলিশ সুপারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহীনির কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। তারা সব জায়গায় খোঁজ অব্যাহত রেখেছেন। আশা করা হচ্ছে বুধবার দুপুরের মধ্যে তাদের সম্পর্কে ভালো তথ্য পাওয়া যাবে।

সাদুল্যাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.ফরহাদ ইমরুল কায়েস জানান, তাদের তুলে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি শুনেছি। বিষয়টি ইতোমধ্যে জেলা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে। তবে এ বিষয়ে কেউ লিখিত অভিযোগ করেননি। তবে এসব পরিবারকে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

গাইবান্ধা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ সার্কেল) মো.রবিউল ইসলাম জানান, পুলিশের কেউ তাদের আটক কিংবা তুলে নিয়ে যায়নি। তবে আমরা বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তদন্ত করে দেখছি।