economics-commodity-market-8221 জয়পুরহাটে চামড়ার বাজার নিয়ে অসন্তোষ

জয়পুরহাটে চামড়ার বাজার নিয়ে অসন্তোষ

প্রকাশ : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬, ১৩:১২

সাহস ডেস্ক

জয়পুরহাটে এবার চামড়ার বাজারে ব্যাপকভাবে ধ্বস নেমেছে। বাজারে গরুর চামড়া বিক্রি হচ্ছে ৬০০ থেকে ৭০০ টাকায়, আর ছাগলের চামড়া বিক্রি হচ্ছে মাত্র ৫০ থেকে ৬০ টাকায়। মৌসুমী ব্যবসায়ীরা গ্রামে-গঞ্জে চামড়া কিনে এবার হাজার হাজার টাকা লোকসানে পড়েছে। আর্ন্তজাতিক বাজারে দাম কমে যাওয়াকেই চামড়ার দাম কমে যাওয়ার মূল কারণ মনে করছেন ব্যবসায়ীরা। তাছাড়াও লবণের মূল্য বৃদ্ধি এবং ট্যানারি মালিকরা বকেয়া টাকা পরিশোধ না করায় কমে গেছে চামড়ার দাম।

হঠাৎ করেই চামড়ার মূল্য কম হওয়ায় হতাশ সাধারণ বিক্রেতারাও। জয়পুরহাট শহর ছাড়াও জেলার বিভিন্ন অস্থায়ী চামড়ার বাজার ঘুরে তথ্য জানা গেছে। 

মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকেল চারটার দিকে শহরের আমতলী মোড়, জামালগঞ্জ মোড়,কেন্দ্রীয় মসজিদ চত্বর সহ জেলার বিভিন্ন বাজার ঘুরে চোখে পড়েছে চামড়া কেনার দৃশ্য। স্থানীয় চামড়া ব্যবসায়ীরা গরুর চামড়া ছোট বড় দেখে দাম করছেন চার’শ থেকে সর্বোচ্চ হাজার টাকা। আর ছাগলের চামড়া কিনছেন ৩৫ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৭০ টাকায়। জেলার সব বাজারেই চামড়ার দরপতনে বাধ্য হয়ে সাধারণ চামড়া বিক্রেতা ছাড়াও মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীরা অনেকটা বাধ্য হয়ে চামড়া বিক্রি করছেন। 

এ নিয়ে সাধারণ বিক্রেতাদের মধ্যে ক্ষোভও দেখা গেছে।

স্থানীয় ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম জানান, ট্যানারি মালিকদের কাছে বাঁকি থাকায় অনেক চামড়া ব্যবসায়ী এবার হাত গুটিয়ে আছেন। বর্তমানে যারা কিনছেন তারা চামড়া ভারতে পাচার উদ্দেশ্যেই কিনছেন। তারা না কিনলে চামড়ার দাম আরো কমে যেত। 

জয়পুরহাট পুলিশ সুপার মোল্যা নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, এবার জেলার প্রতিটি চামড়া ব্যবসায়ী তাদের নজরদারিতে রয়েছে। কে কোথায় কি পরিমাণ চামড়া কিনবে তা জানার জন্য এবং পাচার রোধে সীমান্তের প্রতিটি এলাকায় তাদের সোর্স রয়েছে। যারা প্রতি মুহুর্ত বিষয়টি দেখাশোনা করছেন। কাজেই এবার কোরবানি ঈদে চামড়া পাচার হওয়ার কোন আশঙ্কা নেই বলে তিনি দাবি করেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত