environment-36797-%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%A3-%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A7%87%E0%A6%9B%E0%A7%87-%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%A3-%E0%A6%B8%E0%A6%BE%E0%A7%9F%E0%A7%87%E0%A6%B0 প্রাণ হারিয়েছে প্রাণ সায়ের

প্রাণ হারিয়েছে প্রাণ সায়ের

প্রকাশ | ০৬ জুন ২০১৮, ১৮:০১

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

দুই মুখে অপরিকল্পিতভাবে স্লুইস গেট নির্মাণ, দুই তীর জবরদখল করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বসতি স্থাপন করা, খালের মধ্যে বর্জ্য, ময়লা-আবর্জনা ফেলাসহ নানা কারণে প্রাণ হারিয়েছে প্রাণ সায়ের খাল।

১৮৬৫ সালে সাতক্ষীরার জমিদার প্রাণনাথ রায় শিক্ষার প্রসার ঘটাতে পিএন হাইস্কুল এন্ড কলেজ এবং ব্যবসা বাণিজ্যের সুবিধার্থে প্রাণসায়ের খাল খনন করেন। সাতক্ষীরা সদর উপজেলার খেজুরডাঙ্গি থেকে সাতক্ষীরা শহর হয়ে এল্লারচর পর্যন্ত এ খালের দূরত্ব প্রায় ১৩ কিলোমিটার। প্রথমাবস্থায় এ খালের চওড়া ছিল ২০০ ফুটের বেশি। ভারতের কোলকাতা ও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে সে সময় বড় বড় বাণিজ্যিক লঞ্চ ও নৌকা এসে ভিড় জমাতো এ খালে। এর ফলে সাতক্ষীরা শহর ক্রমশ সমৃদ্ধশালী শহরে পরিণত হয়।

পানি উন্নয়ন বোর্ড দুই পাশে স্লুইস গেট দিয়ে খালটি বদ্ধভূমিতে পরিণত হয়েছে। মাঝে মাঝে উদ্যোগ নেওয়া হলেও সেটা কাজে আসছে না। শহরের পরিবেশ দূষণের প্রধান কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে প্রাণ সায়ের খাল।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মো. ইফতেখার হোসেন বলেন, প্রাণ সায়েরের খাল দখল ও দূষণের মাত্রা যে হারে দাঁড়িয়েছে বর্তমান সেই অবস্থা থেকে বের করে আনতে সমন্বিত পদক্ষেপ ও পরিকল্পনা দরকার। ২শ’ ৬০ কোটি টাকার একটি প্রজেক্ট বাস্তবায়িত হচ্ছে। এই প্রকল্পের বড় অংশই প্রাণ সায়ের খাল সংস্কার ও দখল উদ্ধার করা। আশা করছি এই প্রকল্পের কাজ আগস্ট মাস থেকে শুরু হবে।

সাহস২৪.কম/রিয়াজ