environment-37041-%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%AA%E0%A6%A6%E0%A6%B8%E0%A7%80%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A7%A7%E0%A7%AD%E0%A7%A6-%E0%A6%B8%E0%A7%87%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BF%E0%A6%9F%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%93%E0%A6%AA%E0%A6%B0-%E0%A6%96%E0%A7%8B%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%87-%E0%A6%A8%E0%A6%A6%E0%A7%80%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%BF বিপদসীমার ১৭০ সেন্টিমিটার ওপর খোয়াই নদীর পানি

বিপদসীমার ১৭০ সেন্টিমিটার ওপর খোয়াই নদীর পানি

প্রকাশ | ১৩ জুন ২০১৮, ১২:০৯

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে প্রবল বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে হবিগঞ্জ শহর ঘেঁষে বয়ে যাওয়া খোয়াই নদীর পানি বিপদসীমার ১৭০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এর ফলে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে স্থানীয়রা। এবং ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে হবিগঞ্জ শহরসহ আশপাশের গ্রামগুলো।

আজ বুধবার (১৩ জুন) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নদীর পানি বাড়তে থাকে। 

হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী তাওহিদুল ইসলাম বলেন, ‘সকাল সাড়ে ৯টা থেকে খোয়াই নদীর পানি বিপদসীমার ১৭০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এই মুহূর্তে শহরবাসী ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। জরুরিভাবে মোকাবিলা করার জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ড অতিরিক্ত বালির বস্তা মজুত রাখা হয়েছে। যাতে করে বাঁধের কোনও স্থানে লিকেজ দেখা দিলে তাৎক্ষণিক মেরামতের ব্যবস্থা করা যায়।’

হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী এম এল সৈকত জানান, বুধবার (১৩ জুন) সকাল সাড়ে ৯টায় হবিগঞ্জের মাছুলিয়া পয়েন্টে খোয়াই নদীর পানি ছিল ১১.২ মিটার। যা বিপদসীমার ১৭০ সেন্টিমিটার ওপরে। 

তিনি আরো জানান, ত্রিপুরা রাজ্যে খোয়াই নদীর উজানে থাকা চাকমাঘাট নামক স্থানে একটি ব্যারেজ রয়েছে। পানি বাড়লে সেই ব্যারেজ খুলে দেয়া হয়। গত কয়েকদিন সেখানে টানা বর্ষণের কারণে পানি বাড়ায় তারা বাঁধ খুলে দিয়েছে। ফলে হবিগঞ্জ দিয়ে প্রবাহিত নদীর পানি দ্রুত বাড়ছে।
সাহস২৪.কম/মশিউর