health-31305-%E0%A6%B9%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%B6%E0%A6%BF%E0%A6%AE-%E0%A6%96%E0%A6%BE%E0%A6%9A%E0%A7%8D%E0%A6%9B%E0%A7%87%E0%A6%A8-%E0%A6%9A%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A6%BF%E0%A7%8E%E0%A6%B8%E0%A6%95-%E0%A6%93-%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%B8-%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A7%9C%E0%A6%9B%E0%A7%87-%E0%A6%B6%E0%A6%BF%E0%A6%B6%E0%A7%81-%E0%A6%B0%E0%A7%8B%E0%A6%97 হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসক ও নার্স, বাড়ছে শিশু রোগ

হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসক ও নার্স, বাড়ছে শিশু রোগ

প্রকাশ | ১২ জানুয়ারি ২০১৮, ১১:৫১

তপু আহম্মেদ

টাঙ্গাইলে শীতের ব্যাপকতায় বৃদ্ধি পেয়েছে শিশু রোগ। চলতি সপ্তাহের শীতে ইতোমধ্যে নিউমোনিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে টাঙ্গাইল ২৫০ শষ্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডের ভর্তি হয়েছে ৭১ ও ডায়েরিয়া ওয়ার্ডে ভর্তি শিশু সংখ্যা ৫৩ জন। এ নিয়ে যেমন বিপাকে পড়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক ও সেবিকারা, তেমনি ভোগান্তি সইছেন রোগে আক্রান্ত শিশু অভিভাবকগণ।

জানা যায়, টাঙ্গাইল ২৫০ শষ্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের ২নং শিশু ওয়ার্ডের বেড সংখ্যা ১৩, নবজাতক বেড সংখ্যা ১০ ও স্ক্যানো বেড সংখ্যা ২০। এছাড়াও ডায়েরিয়া শিশু ওয়ার্ডের বেড সংখ্যা ১২টি। হাসপাতালের চিকিৎসক পদ ৫৭টি। তবে শূণ্য পদ ৯টি। এছাড়াও ডেপুটেশনে রয়েছেন ১২ জন চিকিৎসক। এ নিয়ে হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক সংখ্যা ৬০ জন। সেবিকা সংখ্যা ১৯০ জন। এর মধ্যে ডায়েরিয়া ওয়ার্ডের সেবিকা সংখ্যা ৮ জন।

সরেজমিন হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে দেখা যায়, ২নং ওয়ার্ডের ১৩ বেডে ভর্তি রয়েছে নিমোনিয়ার ১১ শিশু, নবজাতক ১০ বেডে ভর্তি ১৫ শিশু রোগী, স্ক্যানো ওয়ার্ডে ২০ বেডে ভর্তি রয়েছে ১৮ শিশু আর ২/এ ওয়ার্ডে ২০ বেডের সবকয়টিতে ভর্তি রয়েছে ১-৫ বছরের শিশু। এছাড়াও ডায়েরিয়া ওয়ার্ডের ১২ বেডে ভর্তি রয়েছে ৫৩ শিশু।

এ নিয়ে ডায়েরিয়া ওয়ার্ডে ভর্তি এক শিশুর অভিভাবক পারভীন বেগম জানান, সোমবার দুপুরে তার ছেলে হঠাৎ ডায়েরিয়ায় আক্রান্ত হয়। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় কিন্তু বেড না থাকায় এ শীতের মধ্যে ওয়ার্ডের ফ্লোরে থাকতে হচ্ছে।

হাসপাতালের সহকারি পরিচালক ডাঃ সদর উদ্দিন জানান, ২৫০ শষ্যা হাসপাতাল হলেও এখানে প্রতিদিন গড়ে প্রায় চিকিৎসাধীন রোগী সংখ্যা ৫’শ। টাঙ্গাইল একটি বড় জেলা ও এর জনসংখ্যাও বেশী। এ কারণে ২৫০ শষ্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের রোগীদের কিছুটা সমস্যা হচ্ছে। তবে এ স্বত্তেও হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকসহ সেবিকারা রোগীদের সর্বোচ্চ সেবা প্রদানে সচেষ্ট রয়েছেন।

সাহস২৪.কম/রিয়াজ