sports-33523-%E0%A6%9F%E0%A6%BE%E0%A6%87%E0%A6%97%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%B9%E0%A7%87%E0%A6%A1-%E0%A6%95%E0%A7%8B%E0%A6%9A-%E0%A6%B9%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%85%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%9A%E0%A7%8D%E0%A6%9B%E0%A6%BE-%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B6-%E0%A6%95%E0%A6%B0%E0%A7%87%E0%A6%9B%E0%A7%87-%E0%A6%AA%E0%A6%B2-%E0%A6%AB%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%AC%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%87%E0%A6%B8 টাইগারদের হেড কোচ হতে অনিচ্ছা প্রকাশ করেছে পল ফারব্রেস

টাইগারদের হেড কোচ হতে অনিচ্ছা প্রকাশ করেছে পল ফারব্রেস

প্রকাশ | ১৩ মার্চ ২০১৮, ১৮:৩২

অনলাইন ডেস্ক

শ্রীলঙ্কার বর্তমান হেড কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে হঠাৎ করে চলে যাওয়ায় অনেক দিন ধরে কোচ শূন্য হয়ে আছে বাংলাদেশ জাতীয় দল। পরে কিছুদিন ধরেই আলোচনা হচ্ছিল-কে হচ্ছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান কোচ। এই আলোচনার পর টাইগারদের হেড কোচের দায়িত্ব নিবেন বর্তমান ইংল্যান্ড জাতীয় দলের সহকারী কোচ পল ফারব্রেস, জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

যদিও ইংল্যান্ড জাতীয় দলের সহকারী কোচ ফারব্রেস টাইগারদের হেড কোচ হতে অনিচ্ছা প্রকাশ করেছে। পরিবারের কারনে তিনি বাংলাদেশে আসতে চান না, এমন খবর নিশ্চিত করেছে ক্রিকইনফো।

ক্রিকেট বিষয়ক সংবাদমাধ্যম ক্রিকইনফোর খবরে বলা হয়েছে, গত সপ্তাহে নাকি ফারব্রেসের সঙ্গে বিসিবির কথাবার্তা চূড়ান্ত হয়েছিল। তাই চুক্তির কাগজপত্রও পাঠানো হয়েছিল তাঁকে। কিন্তু হঠাৎই তিনি বেঁকে বসেন। কারন তাঁর পরিবার নাকি রাজি নয়। এ কারণেই তিনি আসতে চাইছেন না। তবুও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) জানিয়েছে, পল ফারব্রেসের আশা এখনও ছেড়ে দেয়নি তারা।

২০১২ সালে শ্রীলঙ্কার কোচ হিসেবে যোগদেন ফারব্রেস। তাঁর অধীনে দারুণ সাফল্য পেয়েছে দেশটি। শ্রীলঙ্কায় দুই বছরের দায়িত্বে এশিয়া কাপ ও আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন তিনি। এরপর ২০১৪ সালের এপ্রিলে কোচের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিয়ে ইংল্যান্ড দলের সহকারী কোচ হন।

২০০০ সালে ফারব্রেস ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দল ও ইংল্যান্ড নারী দলের কোচের দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৭ সালে শ্রীলঙ্কার কোচ ট্রেভর বেলিসের অধীনে সহকারী কোচের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার সময় দলটির সঙ্গেই ছিলেন।

অবশ্য বিসিবি বেশ কয়েকজনের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। রিচার্ড পাইবাস ও ফিল সিমন্স সাক্ষাৎকার দিয়ে গেছেন। ক্রিকেটাররা চান না বলে পাইবাসকে নিতে চায়নি বিসিবি। তাঁরা এখন অন্য দলের কোচের দায়িত্বে।

এরপর অস্ট্রেলিয়ার জিওফ মার্শ, টম মুডি, জেমি সিডন্স ও স্টুয়ার্ট লকেও প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। এঁদের কেউই আসতে রাজি হননি।

সাহস২৪.কম/খান/আল মনসুর