sports-6600-%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%9C%E0%A6%B6%E0%A6%BE%E0%A6%B9%E0%A7%80%E0%A6%B0-%E0%A6%AE%E0%A7%87%E0%A7%9F%E0%A7%87-%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%82%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%98%E0%A6%BF%E0%A6%A8%E0%A7%80-%E0%A6%85%E0%A6%B2%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A7%8D%E0%A6%AA%E0%A6%BF%E0%A6%95-%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A6%9A%E0%A7%8D%E0%A6%9B%E0%A7%87%E0%A6%A8-(%E0%A6%AD%E0%A6%BF%E0%A6%A1%E0%A6%BF%E0%A6%93) রাজশাহীর মেয়ে ‘বাংলার বাঘিনী’ অলিম্পিক মাতাচ্ছেন (ভিডিও)

রাজশাহীর মেয়ে ‘বাংলার বাঘিনী’ অলিম্পিক মাতাচ্ছেন (ভিডিও)

প্রকাশ | ১৯ আগস্ট ২০১৬, ১৯:১৫

অনলাইন ডেস্ক

তাকে সবাই চেনেন ‘বাংলার বাঘিনী’ নামে। সেই বাংলার বাঘিনী এখন মাতাচ্ছেন অলিম্পিকের আসর। অথচ বাংলাদেশের খুব কম মানুষই জানেন এই বাঘিনীর অর্জন আর গৌরবের গল্প। না জানার প্রধান কারন বাংলাদেশের রাজশাহীতে জন্ম নেয়া বাংলার বাঘিনী খ্যাত মার্গারিটা মামুন রিটা অলিম্পিকে অংশ নিচ্ছেন রাশিয়ার হয়ে।

২০১৬ ব্রাজিল রিও অলিম্পিক জিমন্যাস্টিক্সে (রিদমিক) অংশ নিচ্ছেন এই বাংলাদেশি তরুণী মার্গারিটা মামুন রিটা। ২০ বছর বয়সী এই নারীর বাবা বাংলাদেশী হলেও তার মা রাশিয়ান। মূলত মায়ের সূত্রেই রিটা’র রাশিয়ায় চলে যাওয়া। মা ছিলেন রিদমিক জিমন্যাস্ট, তার হাত ধরেই এই খেলায় হাতেখড়ি। পরে সেখান থেকে এ বছর প্রথমবারের মতো অলিম্পিকে অংশ নিচ্ছেন তিনি।

রিটার বাবা আবদুল্লাহ আল মামুন। তিনি মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে মাস্টার ডিগ্রিধারী। মা রাশিয়ার আন্না। তারা এখন সপরিবারে সেখানেই থাকেন।

গত কয়েক বছরে রিদমিক জিমন্যাস্ট অঙ্গনে বেশ সুনাম কুড়িয়েছেন রিটা। এর মধ্যে জিতেছেন রাশিয়ার রিদমিক জিমন্যাস্ট দলের প্রধান কোচের মনও। আর তাই তো সে কোচ রিটার নাম দিয়েছেন ‘দ্য বেঙ্গল টাইগার’ বা ‘বাংলার বাঘিনী’। তার এই বিশেষ নামটি আন্তর্জাতিক জিমন্যাস্টিকস ফেডারেশনের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটেও পাওয়া যায়, সঙ্গে উইকিপিডিয়াতেও।

রিটার অল-অ্যারাউন্ড একক ইভেন্টটির বাছাই শুক্রবার (১৯ আগস্ট), বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায়।

২০১৫ মস্কো গ্রাঁ প্রিঁ-তে অল-রাউন্ড ইভেন্টে স্বর্ণ জয় করেছিলেন মার্গারিটা রিটা। এ বছর (২০১৬) একই আসরে একই ইভেন্টে চতুর্থ হয়েছেন। এছাড়া সোচিতে ২০১৬ রাশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে তিনি রূপা পদক জিতেছেন অল-রাউন্ড ইভেন্টে। শুধু তাই নয় টানা ছয় বছরের মতো রিদমিক জিমন্যাস্টিকসের দুনিয়ায় ধরে রেখেছেন আধিপত্য।