সিরাজগঞ্জ হার্ডপয়েন্টের ভাঙ্গন পরিদর্শনে পানি সচিব

প্রকাশ : ০২ জুলাই ২০২১, ১৬:৫১

সাহস ডেস্ক

সিরাজগঞ্জে যমুনা নদীর হার্ডপয়েন্ট বাধ ভাঙ্গন পরিদর্শন করেছেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কবির বিন আনোয়ার। এ সময় তিনি ধসের খোঁজ খবর নেন এবং চলমান জরুরি সুরক্ষা ব্যবস্থা নিতে প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।

শুক্রবার (২ জুন) দুপুরের সিরাজগঞ্জ শহররক্ষা বাঁধ পরিদর্শনকালে আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহাম্মদ, লে: কর্নেল সায়েম ও নির্বাহী প্রকৌশলী মো: শফিকুল ইসলামসহ প্রশাসনের পদস্থ কর্মকর্তারা।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পানি সম্পদ সচিব বলেন, নির্মাণের পর ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান 'হোন্দাই কোম্পানি' থেকে বাঁধের স্থায়িত্বকাল বলা হয়েছিল একশ বছর। অথচ মাত্র ১০ বছরের মাথায় ওই বাঁধে পর পর ধস দেখা দেয়। বাধ্য হয়েই বলতে হয় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের নির্মাণ কাজে অবশ্যই ত্রুটি ছিল, তা না হলে কেন এভাবে ধসে যমুনায় পরপর বিলীন হবে।

তিনি আরও বলেন, জরুরী প্রতিরক্ষা কাজের অংশ হিসেবে তাৎক্ষনিকভাবে জিওটেক্সে বালু ও ব্লক ফেলে ধস ও ভাঙন নিয়ন্ত্রণে পাউবোকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সে অনুযায়ী প্রতিরক্ষার কাজ চলমান রয়েছে। বঙ্গবন্ধু সেতু থেকে সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা বাঁধ পর্যন্ত সাড়ে ৮ কি.মি. অংশেই আগামীতে যমুনার তলদেশে ও বাঁধ ঘেষে ব্যাথেমেট্রিক সার্ভে করা হবে। শহর রক্ষার বাঁধের ঢালে যেসব স্থানকে ঝুঁকিপূর্ণ মনে হবে, সেসব স্থান চিহ্নিত করে প্রয়োজনে হার্ডরক ফেলে সুরক্ষার জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার দুপুরে হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) এর 'সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা বাঁধ' বা 'হার্ডপয়েন্ট'র প্রায় ১০০ মিটার অংশ ধসে পড়ে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?