পুলিশের কব্জি কেটে নেওয়া কবির গুলিবিদ্ধ অবস্থায় গ্রেপ্তার

প্রকাশ : ২০ মে ২০২২, ১৩:২১

সাহস ডেস্ক

চট্টগ্রামের লোহাগড়ায় কনেস্টেবল জনি খানের কব্জি বিচ্ছিন্ন করার ঘটনায় মামলার মূল আসামি কবির আহমদকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। বৃহস্পতিবার (১৯ মে) রাতে লোহাগড়ার পাহাড়ি এলাকা থেকে এক সহযোগীসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। র‍্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যের কব্জি বিচ্ছিন্নের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার মূল আসামি কবিরকে র‍্যাবের অভিযানে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সহযোগীসহ লোহাগড়ার পাহাড়ি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ বিষয়ে পরে বিস্তারিত জানানো হবে।

রবিবার (১৫ মে) সকালে চট্টগ্রামের লোহাগড়া উপজেলায় আসামি ধরতে অভিযানে যায় পুলিশ। অভিযানের সময় আসামি কবিরের ধারালো দায়ের কোপে হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন হয় কনস্টেবল জনি খানের। একই ঘটনায় মামলার বাদীসহ আরও এক কনস্টেবল আহত হন। ওইদিন রাতেই বান্দরবন সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে কবিরের স্ত্রী রানু বেগমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পদুয়া এলাকার বাসিন্দা মো. আবুল হোসেন গত ২৪ মার্চ অনধিকার প্রবেশ ও মারামারির অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় পদুয়ার লালারখিল এলাকার মৃত আলী হোসেনের ছেলে কবির আহমদকে (৪০) ২ নম্বর আসামি করা হয়। রবিবার (১৫ মে) সকাল ১০টার দিকে লোহাগাড়া থানার এসআই ভক্ত চন্দ্র দত্তের নেতৃত্বে থানা পুলিশের একটি টিম আসামি কবির আহমদকে গ্রেপ্তারের জন্য তার বাড়িতে অভিযান চালালে আসামি কবিরের নেতৃত্বে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘবদ্ধভাবে পুলিশের ওপর হামলা চালানো হয়। ঘটনার পর পালিয়ে যান আসামি কবির।

সাহস২৪.কম/এএম/এসকে.

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?