ফিফা র‍্যাঙ্কিং: আর্জেন্টিনা ৩, বাংলাদেশ ১৯২

প্রকাশ : ২৩ জুন ২০২২, ২০:১৫

সাহস ডেস্ক

ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের আরও অবনতি হয়েছে। ৪০ মাস পর আবার ফুটবল র‍্যাঙ্কিংয়ে ১৯০-এর ঘরে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে তুর্কমেনিস্তানের কাছে হেরে যাওয়ায় বাংলাদেশের অবস্থান হয়ে গিয়েছিল ১৯২। সে অবস্থা থেকে উত্তরণের উপায়ও ছিল, যদি বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে মালয়েশিয়ার বিপক্ষে ইতিবাচক কোনো ফল মিলত। কিন্তু শেষ ম্যাচে ১৪ জুন মালয়েশিয়ার কাছে ৪-১ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ। তাতে রেটিং পয়েন্ট আরও ৮.৮১ কমেছে, তবে অবস্থানের বদল হয়নি। তবে উন্নতি হয়েছে আর্জেন্টিনার। শীর্ষ তিনে ঢুকে পড়েছে লিওনেল মেসির দল। এদিকে ব্রাজিল শীর্ষস্থান ধরে রাখলেও নেশনস লিগ থেকে ছিটকে পড়ার দায়ে তিন থেকে চারে নেমেছে ফ্রান্স। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) আনুষ্ঠানিকভাবে র‍্যাঙ্কিং হালনাগাদ করেছে ফিফা।

ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের ১৯২তম দল। এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের তিন ম্যাচেই হেরেছে বাংলাদেশ। এর আগে একটি প্রীতি ম্যাচেও কোনো জয় নেই। এর ফলে মার্চের প্রকাশিত রেটিং ২০.৮০ পয়েন্ট কমে গেছে। সে সঙ্গে চার ধাপ পিছিয়েছে বাংলাদেশ। এভাবে পেছানোয় এশিয়া অঞ্চলে বাংলাদেশের পেছনে আছে আর মাত্র চারটি দল। এর মধ্যে দুটিই অবশ্য সাফ অঞ্চলের দুই প্রতিবেশী-পাকিস্তান (১৯৬) ও শ্রীলঙ্কা (২০৭)। দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলে তাই নিজেদের নিচে আরও দুই দলকে পাচ্ছে বাংলাদেশ। কোনো ম্যাচ না খেলেও এক ধাপ এগিয়েছে পাকিস্তান। আর টানা হারে দুই ধাপ পিছিয়েছে শ্রীলঙ্কা। ওদিকে বাছাইপর্বে ভালো করার পুরস্কার পেয়েছে ভারত। দুই ধাপ এগিয়ে এখনো ১০৪-এ ভারত। এরপর মালদ্বীপ, রেটিং পয়েন্ট খোয়ালেও নিজেদের আগের অবস্থান ধরে রেখেছে দলটি (১৫৬)। ৮ ধাপ পেছালেও দক্ষিণ এশিয়ার শীর্ষ তিনেই আছে নেপাল (১৭৬)। এক ধাপ এগিয়েছে ভুটানও (১৮৬)। দক্ষিণ এশিয়ার দলগুলোর নিজেদের মধ্যকার অবস্থানের ক্রমটা ঠিক থাকলেও বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ে ঠিকই বড় অদলবদল আছে। আর্জেন্টিনা শীর্ষ তিনে উঠে এসেছে। ফ্রান্স নিয়েছে আর্জেন্টিনার ফেলে যাওয়া চতুর্থ স্থানটি। এমন অদলবদল আরও আছে। ইতালি ছয় থেকে সাতে নেমেছে। স্পেন ছয়ে উঠেছে সাত থেকে। নেদারল্যান্ডস ১০ থেকে ৮-এ উঠে এসেছে। ওদিকে শীর্ষ ১০-এ ঢুকে পড়েছে ডেনমার্ক। তাদের জায়গা করে দিতে ৯ নম্বর থেকে ছিটকে গেছে মেক্সিকো। পর্তুগালও এক ধাপ পিছিয়ে ৯ নম্বরে নেমে গেছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?